Page 1 of 1

ঘুমের মধ্যে অবচেতন অবস্থায় আপনি কি করেন?

Posted: Tue Jul 28, 2015 10:59 am
by Taskin Mahamud
প্রতিদিন আমরা রাতে নিয়ম করে ঘুমোতে যাই এবং সকালে উঠি। এটাই স্বাভাবিক নিয়ম। সেই অনুযায়ী আমাদের রোজনামচা তৈরি হয়। শরীরও সেই অনুযায়ী ধাতস্থ হয়। ঘুম ঠিক না হলে শরীরে নানা সমস্যা তৈরি হয়। যাদের ইনসোমনিয়া বা ঘুম কমের রোগ রয়েছে তাঁরা উত্তেজনা, শারীরিক ধকল, মনোসংযোগের অভাবে ভোগেন। আমরা যখন ঘুমোই তখনও অবচেতনে আমাদের শরীরের নানা অংশ কাজ করে চলে। মস্তিষ্কে নানা ধরনের ক্রিয়া চলতে থাকে। আসুন জেনে নিই ঘুমের মধ্যে ঠিক কী ধরনের ক্রিয়া আমাদের মধ্যে চলতে থাকে।

গ্রোথ হরমোন: ঘুমানো অবস্থায় গ্রোথ হরমোন নিঃসৃত হয়। শিশু বয়সে এটি আমাদের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। আর প্রাপ্তবয়স্ক অবস্থায় শরীরের নানা অংশকে সারিয়ে তোলে।

ঘুমের মধ্যে কথা বলা: পৃথিবীতে ১০০ জনে ৬ জন মানুষ ঘুমের মধ্যে কথা বলে। মহিলাদের থেকেও পুরুষ ও শিশুদের মধ্যে এই প্রবণতা বেশি লক্ষ্য করা যায়। আপনি ঘুমের মধ্যে বিষয়টি বুঝতে না পারলেও পাশে শোওয়া মানুষেরা এটা ভালোভাবেই বুঝতে পারেন। স্ট্রেস, ডিপ্রেশন বা কোনও শরীর খারাপ থেকেই মানুষ ঘুমের মধ্যে কথা বলে।

দাঁত কিড়মিড় করা: অনেকেই ঘুমের মধ্যে দাঁত চিবিয়ে ওঠেন। চিকিৎসা পরিভাষায় একে বলে ব্রুক্সিজম। সঠিকভাবে এর কারণ এখনও বের করা না গেলেও মনে করা হয় স্ট্রেস বা কোনও উত্তেজনা থেকেই এরকম হয়ে থাকে।

মেসেজ করা: এটা একেবারে কমবয়সীদের হয়। সারাদিন মেসেজ পাঠাতে ব্যস্ত কমবয়সীরা ঘুমের মধ্যেই মেসেজ পাঠাচ্ছে বলে মনে করে। এটা কোনও স্বপ্ন নয়, অবচেতনে এরকম হচ্ছে বলে মনে হয়।
Image

ঘুমের মধ্যে হঠাৎ জেগে যাওয়া: ঘুমের মধ্যে এটা খুব সাধারণ ঘটনা। ঘুমোতে ঘুমোতে এমন একটা পর্যায় আসে যখন আমাদের শরীর কোমায় চলে যাওয়ার অবস্থায় আসে। সেটা ঠেকাতেই আপনা থেকেই আমাদের ঘুম ভেঙে যায়। অর্থাৎ আমাদের মস্তিষ্ক ঘুমের মাঝেও পার্থিব জগতের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ ধরে রাখে।

ঘুমের মধ্যে হঠাৎ করে ঝাড়া দিয়ে ওঠা: ঘুমের মধ্যে অনেকেই হঠাৎ করে সোজা হয়ে বসে পড়েন। অনেক সময় মস্তিষ্ক বুঝতে পারে না কোন সঙ্কেত পাঠাবে, তাই এই অবস্থা হয়। যদিও বিজ্ঞানীরা এখনও পর্যন্ত এর কোনও সঠিক কারণ খুঁজে পাননি।

আমরা পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়ি: ঘুমিয়ে পড়লে এটা খুব সাধারণ ঘটনা। অবচেতন অবস্থায় আমাদের নড়াচড়াও বন্ধ হয়ে যায়। যাতে ঘুমের মধ্যে কোনও ব্যাগাত না ঘটে। ঘুম ভাঙলে আমরা আগের মতোই ঠিক হয়ে যাই।

বিস্ফোরণের শব্দ শোনা: পঞ্চাশোর্ধ অনেক মানুষই ঘুমের মধ্যে বিস্ফোরণ বা গুলির শব্দ শোনেন। এটাকে চিকিৎসা পরিভাষায় বলে ‘হেড সিন্ড্রোম’। এতে শরীরের খুব একটা ক্ষতি না হলেও ঘুমের ব্যাঘাত হয়।

চোখের মণি ঘুরতে থাকে: ঘুমের মধ্যে চোখের মণি ঘুরতে থাকে। সাধারণভাবে ঘুমের পাঁচটি পর্যায় রয়েছে। একদম শেষ পর্যায়ে আমাদের ঘুম খুব গভীর হয়। সেই পর্যায়েই আমরা স্বপ্নও দেখি ও চোখের মণি ঘুরতে থাকে।

কিডনির কাজ ধীরে হয়: সারাদিন আমাদের কিডনি রক্ত থেকে শরীরের দূষিত টক্সিন বের করে চলে। ঘুমানো অবস্থায় সেই কাজটাই ধীর গতিতে হয় ও কিডনি খানিকটা বিশ্রাম পায়।

গন্ধ টের পাওয়া যায় না: ঘুমোলে আমরা ভালো মন্দ কোনও গন্ধই টের পাই না। একই কারণে বিষাক্ত গন্ধযুক্ত গ্যাস ঘুমের মধ্যে নাকে গেলে মানুষ মারা যায়।

গলার পেশি সরু হয়ে যায়: ঘুমোনোর সময় গলার পেশি রিল্যাক্স করে ও সরু হয়ে যায়। যার ফলে শ্বাস নেওয়ার ধরন বদলে যায়। এই কারণেই অনেকে নাক ডাকে।
link removed as per forum rules

Re: ঘুমের মধ্যে অবচেতন অবস্থায় আপনি কি করেন?

Posted: Fri Nov 20, 2015 6:35 pm
by habib tuhin
ঘুমের মরধ্যে আমি যে কি করি তা জানি না, তবে আমার পাশে যারা থাকে তারা জানে।