গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

লিনাক্স সম্পর্কিত আলোচনা
User avatar
আলোকিত
সমন্বয়ক
Posts: 3424
Joined: Wed Sep 19, 2007 10:16 pm
লাইসেন্স: by-nc-nd (Creative Commons)
পছন্দ করি: কেডিই ৪, উবুন্টু, ফায়ারফক্স
Location: ঢাকা, বাংলাদেশ
Contact:

গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

Post by আলোকিত » Thu Aug 07, 2008 7:15 am

উবুন্টু/ফেডোরার মত ব্যবহারবান্ধব লিনাক্স ডিস্ট্রোগুলোর কল্যাণে আজকাল অনেক হোম ইউজার লিনাক্সের প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছেন। কিন্তু "লিনাক্স সাধারণ ব্যবহারকারীদের জন্য নয়, শুধুমাত্র অভিজ্ঞ ব্যবহারকারীরাই লিনাক্স ব্যবহার করতে পারেন"- অনেকের এ ধারণা এখনো পাল্টায় নি। তাদের এ ধারণা পুরোপুরি ভুল, লিনাক্সে সাধারণ ব্যবহারকারীদের স্বাচ্ছ্যন্দের জন্যেও প্রচুর সুব্যবস্থা আছে। তারই একটি হচ্ছে কম্পিজ ফিউশন

Image
চিত্র: কিছু কম্পিজ ইফেক্ট সহ উবুন্টু ডেস্কটপ(বড় আকারের ছবি দেখতে ছবির ওপর ক্লিক করুন)

সংক্ষিপ্ত ইতিহাস: আজ থেকে প্রায় দুবছর আগে বাজারে আসে উইন্ডোজ ভিসতা, এর হাইফাই "ওয়াও" ইফেক্ট নিয়ে। দৃষ্টিনন্দন গ্রাফিক্যাল ইউজার ইন্টারফেস আর টুকটাক থ্রিডি ইফেক্টই হচ্ছে ভিসতার প্রধান আকর্ষণ। কিন্তু উইন্ডোজ ভিসতা বাজারে আসার অনেক আগেই লিনাক্স এবং ম্যাক ওএসএক্স-এ ছিল ভিসতার চেয়েও অনেক উন্নত গ্রাফিক্যাল ইফেক্ট। লিনাক্সে গ্রাফিক্যাল ইফেক্ট আনা হয়েছিল বেরিল-প্রজেক্ট এবং কম্পিজ উইন্ডো ম্যানেজার নামের দুটি আলাদা ওপেন সোর্স প্রজেক্টের মাধ্যমে। দুটোরই উদ্দেশ্য ছিল লিনাক্স ডেস্কটপ এনভায়রনমেন্টের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধির পাশাপাশি একে আরও ব্যবহারবান্ধব করে তোলা। পরবর্তীতে বেরিল এবং কম্পিজ এক হয়ে তৈরি হয় কম্পিজ ফিউশন। তবে কম্পিজ আর কম্পিজ ফিউশন এক জিনিস নয়, কম্পিজ একটি স্বতন্ত্র উইন্ডো ম্যানেজার আর কম্পিজ ফিউশন হচ্ছে কম্পিজ আর বেরিলের সমন্বয়ে গঠিত বিভিন্ন প্লাগ-ইন সম্বলিত একটি প্রজেক্ট। এ সম্পর্কে বিস্তারিত দেখুন এখানে...

কম্পিজ ভিজ্যুয়াল ইফেক্ট- সৌন্দর্য্য এবং কার্যকারীতার অপূর্ব সংমিশ্রণ:
কম্পিজ/কম্পিজ ফিউশনের লক্ষ্য শুধুমাত্র দৃষ্টিনন্দন ইফেক্ট তৈরি নয়, বরং বিভিন্ন ভিজ্যুয়াল ইফেক্টের পাশাপাশি কিভাবে ডেস্কটপ পরিবেশকে সাধারণের চেয়ে অধিক ব্যবহারবান্ধব করে তোলা যায় সেটিও এদের অন্যতম প্রধান উদ্দেশ্য। কম্পিজ ফিউশনের ইফেক্ট বা প্লাগইনসমূহ কয়েকটি ক্যাটাগরিতে বিভক্ত, যেমন- Accessibility, Desktop, Effect, Extra, Window Management ইত্যাদি। এ সবগুলো ক্যাটাগরির সব প্লাগ-ইন স্ব-স্ব ক্যাটাগরির ধরণ অনুযায়ী কাজ করে থাকে। যেমন- এ্যাক্সেসিবিলিটি ক্যাটাগরির প্লাগ-ইন সমূহের কাজ হচ্ছে প্রয়োজনীয় বিভিন্ন কাজের সহজ শর্টকাট তৈরি করা। ডেস্কটপ এবং উইন্ডো ম্যানেজমেন্ট ক্যাটাগরির প্লাগইনসমূহের কাজ যথাক্রমে ডেস্কটপ এবং উইন্ডো ম্যানেজমেন্টকে ব্যবহারবান্ধব করে তোলা এবং সেই সাথে বিভিন্ন ভিজ্যুয়াল ইফেক্ট প্রদান করা। ইফেক্ট ক্যাটাগরি অন্যান্য ক্যাটাগরির প্লাগ-ইন গুলোকেই অতিরিক্ত ইফেক্ট প্রদান করে থাকে বা সাধারণ কাজের জন্য আনুষঙ্গিক নয় এমন দৃষ্টিনন্দন ভিজ্যুয়াল ইফেক্ট এ ক্যাটাগরির অন্তর্ভুক্ত। এগুলো ছাড়াও আরও কয়েকটি ক্যাটাগরি আছে যেগুলো বিভিন্ন ধরণের কাজ সম্পাদন করে থাকে।

যাইহোক বেশি গভীরে না গিয়ে এখানে কম্পিজের বিভিন্ন ক্যাটাগরির কিছু জনপ্রিয় ইফেক্ট এবং এদের কাজ উল্লেখ করছি এবং জনপ্রিয় লিনাক্স ডিস্ট্রিবিউশন উবুন্টু লিনাক্সের ডিফল্ট নোম সংস্করণে কম্পিজ ইনস্টল এবং কনফিগার সংক্রান্ত কিছু টিপস দিচ্ছি....

১। ওয়ার্কস্পেস ম্যানেজার: এ ঘরাণার প্লাগইন এর কাজ হল ডেস্কটপের ওয়ার্কস্পেসসমূহ এবং এদের অধীনস্থ উইন্ডো নিয়ন্ত্রণ। নীচে কয়েকটি জনপ্রিয় ওয়ার্কস্পেস ম্যানেজার প্লাগইন এবং এদের কর্মপদ্ধতি উল্লেখ করছি:

ক) এক্সপো: এই প্লাগইন ডেস্কটপের সকল ওয়ার্কস্পেস পাশাপাশি থাম্বনেইল আকারে দেখায়। থাম্বনেইলে ক্লিক করে ওয়ার্কস্পেস পরিবর্তন করা যায় এবং এক ওয়ার্কস্পেসের উইন্ডো ড্র্যাগ করে অন্য ওয়ার্কস্পেসে নেয়া যায়। এক্সপো প্লাগইন এর ডিফল্ট শর্টকাট হচ্ছে Ctrl+E, কোন ওয়ার্কস্পেসের ওপর লেফট ক্লিক করলে সেটি নির্বাচিত হবে এবং আবার লেফট ক্লিক অথবা একবার রাইট ক্লিক করলে সেই ওয়ার্কস্পেস সক্রিয় হবে।

Image
চিত্র: কম্পিজ এক্সপো প্লাগইন

খ) ডেস্কটপ কিউব: ডেস্কটপ কিউব কম্পিজের একটি অন্যতম জনপ্রিয় প্লাগইন। এটি কম্পিজ উইন্ডো ম্যানেজারের ওয়ার্কস্পেসগুলোকে একটি আয়তক্ষেত্র, গোলক*, বা চোঙ* -এর মধ্যে দেখায় এবং ডেস্কটপ পরিবেশকে ত্রিমাত্রিকতা প্রদান করে। ডেস্কটপ কিউব সক্রিয় করতে হলে:
১। প্রথমে Desktop Cube এবং Rotate Cube প্লাগইন দুটো সক্রিয় করুন।
২। এরপর কম্পিজকনফিগ সেটিংস ম্যানেজার এর Generel Options এ প্রবেশ করুন।
৩। ডেস্কটপ সাইজ থেকে Horizontal Virtual Size এর মান 4 এ সেট করুন এবং Vertical Virtual Size এর মান 1 এ সেট করুন।
৪। এবার Ctrl+Alt+Left Mouse Button চেপে মাউস পয়েন্টার ডানে-বামে সরিয়ে ডেস্কটপ কিউব উপভোগ করুন।

ডেস্কটপ কিউবের সাথে জড়িত অন্যন্য প্লাগইনগুলো হচ্ছে:

রোটেট কিউব: এটি কিউবের ঘূর্ণন সংক্রান্ত সেটিংস নিয়ন্ত্রণ করে।
থ্রিডি উইন্ডোজ: এটি প্রতিটি কিউবের ওপর অবস্থিত উইন্ডোসমূহকে ত্রিমাত্রিকতা প্রদান করে।
কিউব রিফ্লেকশন এবং ডিফরমেশন*: এটি কিউবের আকৃতি পরিবর্তন এবং কিউবের পটভূমিতে প্রতিবিম্ব প্রদান করে।
কম্পিজ ডেস্কটপ কিউবের কিছু স্ক্রিণশট:

Image
চিত্র: ডিফল্ট কম্পিজ কিউব

Image
চিত্র: কম্পিজ কিউব স্ফেয়ার ডিফরমেশন*

Image
চিত্র: কম্পিজ কিউব সিলিন্ডার ডিফরমেশন*

২। উইন্ডো/ডেস্কটপ এনিমেশন, ট্রান্সপারেন্সি ইত্যাদি: এ জাতীয় প্লাগইন উইন্ডো এবং ডেস্কটপ পরিবেশকে অতিরিক্ত ইফেক্ট, এনিমেশন ও ট্রান্সপারেন্সি প্রদান করে যা ডেস্কটপ পরিবেশকে আরও আকর্ষণীয় এবং দৃষ্টিনন্দন করে তোলে। এই প্লাগইনগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে:

ক) এনিমেশন: এই প্লাগইন উইন্ডোর সাধারণ Minimize, Maximize, Open, Close এর সময়কালীন ইফেক্ট প্রদান করে। কোন ইফেক্টে কোন এনিমেশন প্রদর্শন করবে তা কম্পিজকনফিগ সেটিংস ম্যানেজার* থেকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়।
*লেখার নীচের অংশ দ্রষ্টব্য।

খ) উইন্ডো ড্র্যাগ ইফেক্ট(Wobbly Windows): এই প্লাগইন কোন উইন্ডো ড্র্যাগ করার সময় অতিরিক্ত ইফেক্ট প্রদান করে। স্ক্রিণশট:

Image
চিত্র: উইন্ডো ড্র্যাগ ইফেক্ট

গ) বৃষ্টি এবং আগুন: ডেস্কটপে বৃষ্টি এবং আগুন এর আবহ তৈরি করে এই প্লাগইন দুটি। প্লাগইনদুটির স্ক্রিণশট:

Image
চিত্র: বৃষ্টি আবহ

Image
চিত্র: আগুন-এর আবহ

ঘ) উইন্ডো প্রিভিউ: এটি টাস্কবারে অবস্থিত উইন্ডোসমূহের থাম্বনেইল প্রিভিউ প্রদান করে.....

Image
চিত্র: উইন্ডো প্রিভিউ

ঙ) মাউস পয়েন্টার চিহ্নিতকরণ: এটি মাউস পয়েন্টারে অতিরিক্ত আবহ তৈরি করে। এই প্লাগইন এর নাম Show Mouse এবং ডিফল্ট শর্টকাট Super+k
স্ক্রিণশট:

Image
চিত্র: মাউস ইফেক্ট

চ) ট্রান্সপারেন্সি: এই প্লাগইনটি ব্যবহৃত যেকোন উইন্ডোকে স্বচ্ছ করার জন্য। প্লাগইনটি সক্রিয় অবস্থায় যেকোন উইন্ডোর ওপর মাউস কার্সর স্থাপন করে Ctrl+Mouse Scroll করে উইন্ডোটিকে পছন্দমত স্বচ্ছ-অস্বচ্ছ করে নিতে পারবেন....

Image
চিত্র: উইন্ডোর স্বচ্ছতা

৩। উইন্ডো ম্যানেজমেন্ট: এ জাতীয় প্লাগইনসমূহ উইন্ডো ব্যবস্থাপনাকে আরও সহজ এবং ব্যবহারবান্ধব করে তোলে। এ ক্যাটাগরির কিছু জনপ্রিয় প্লাগ-ইন হচ্ছে:

ক) এ্যাপ্লিকেশন/উইন্ডো পরিবর্তক: উইন্ডো পরিবর্তক ব্যবহৃত হয় কীবোর্ড শর্টকাটের মাধ্যমে এক উইন্ডো থেকে অন্য উইন্ডোতে ফোকাস করার জন্য। এর সাধারণ শর্টকাট হচ্ছে Alt+Tab, তবে ব্যবহারকারী পছন্দ অনুযায়ী যেকোন শর্টকাট নির্বাচন করতে পারেন।
কম্পিজে আছে বেশ কিছু উইন্ডো পরিবর্তক। নীচে কম্পিজের উইন্ডো পরিবর্তকগুলোর স্ক্রিনশট দেয়া হল:

Image
চিত্র: কম্পিজ ডিফল্ট উইন্ডো পরিবর্তক

Image
চিত্র: শিফট সুইচার

Image
চিত্র: রিং সুইচার

খ) উইন্ডো ট্যাব এবং গ্রুপিং: এই প্লাগইন একাধিক উইন্ডোকে একসাথে দলবদ্ধ করতে বা একটি ট্যাবে নিয়ে আসতে ব্যবহৃত হয়। স্ক্রিণশট:

Image
চিত্র: উইন্ডো গ্রুপিং

Image
চিত্র: উইন্ডো ট্যাবিং

৪। অতিরিক্ত: এ ক্যাটাগরির প্লাগইনসমূহ অতিরিক্ত কিছু আনুসঙ্গিক কাজ সম্পাদনের জন্য ব্যবহৃত হয়। যেমন:

ক) এ্যানোটেট: এ প্লাগইন এর সাহায্যে মাউস পয়েন্টারকে ডেস্কটপে ছবি আঁকার একটি পেন্সিল হিসাবে ব্যবহার করতে পারবেন। ডেস্কটপ এর কোন স্থান চিহ্নিত করে স্ক্রিণশট নেয়ার জন্য এটি অত্যন্ত কার্যকর একটি প্লাগইন.....

Image
চিত্র: এ্যানোটেট প্লাগইন

খ) স্ক্রিণশট: এই প্লাগইনটি ব্যবহৃত হয় ডেস্কটপের কোন নির্দিষ্ট অংশের স্ক্রিণশট নেয়ার জন্য। প্লাগইনটি সক্রিয় অবস্থায় Metakey+Left Mouse button চেপে উইন্ডোজের কোন অংশে ড্র্যাগ করুন। মাউস বাটন ছেড়ে দিলে ড্র্যাগ করা অংশটি ডেস্কটপে একটি পিএনজি ফরম্যাটের ছবি হিসাবে সংরক্ষিত হয়ে যাবে।

*শুধুমাত্র কম্পিজের সর্বশেষ সংস্করণের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য

উবুন্টু লিনাক্সে কম্পিজ ফিউশন সক্রিয়করণের নিয়মাবলী:

লিনাক্সে কম্পিজের ইফেক্টসমূহ চালাতে প্রয়োজন হয় একটি ভালো মানের গ্রাফিক্স কার্ড, গ্রাফিক্স কার্ডের লিনাক্স সমর্থিত ড্রাইভার এবং কম্পিজ এর প্রয়োজনীয় প্যাকেজ ও ডিপেন্ডেন্সিসমূহ।
উবুন্টুতে ডিফল্টভাবেই কম্পিজের কিছু ইফেক্ট দেয়া থাকে। তবে উবুন্টুতে কোন ক্লোজড সোর্স গ্রাফিক্স কার্ড ড্রাইভার দেয়া হয় না কাজেই কম্পিজের ইফেক্টগুলোও ডিফল্টভাবে সক্রিয় থাকে না।

উবুন্টুতে কম্পিজ চালু করতে প্রথমেই গ্রাফিক্স ড্রাইভার সক্রিয় করে নিতে হবে। এনভিডিয়া এবং এটিআই ঘরাণার গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহারকারীরা সিনাপ্টিক থেকে envyng প্যাকেজটি ইনস্টল করুন, এরপর System Tools>> EnvyNG থেকে আপনার গ্রাফিক্স কার্ড মডেল অনুযায়ী গ্রাফিক্স ড্রাইভার ইনস্টল করে নিন।
ইন্টেল ও অন্যান্য ব্র্যান্ডের গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহারকারীরা System>> Administration>> Harware Drivers থেকে প্রয়োজনীয় ড্রাইভার ইনস্টল করুন।

ড্রাইভার ইন্সটলের পর ইনস্টল করতে হবে কম্পিজের সর্বশেষ এবং অতিরিক্ত প্যাকেজসমূহ। উবুন্টু রিপোজিটরিতে এখন পর্যন্ত কম্পিজের সর্বশেষ সংস্করণ আসেনি। এতে কিউব ডিফরমেশন সহ আরও কিছু ইফেক্ট পাওয়া যাবে না।
সর্বশেষ কম্পিজ ইনস্টল করতে:
১। প্রথমে সিনাপ্টিক এর Settings Menu থেকে Repositories এ ক্লিক করুন।
২। এবার থার্ড পার্টি সফটওয়্যার ট্যাবে গিয়ে এ্যাড বাটনে ক্লিক করুন।
৩। এ্যাপ্ট লাইনে

Code: Select all

deb http://ppa.launchpad.net/compiz/ubuntu hardy main
লিখে এন্টার চাপুন। সিনাপ্টিকের উপরে ডানদিকের রিলোড বাটনে ক্লিক করুন।
৪। রিপোজিটরি রিফ্রেশ সম্পন্ন হওয়ার পর সিনাপ্টিক বন্ধ করে দিন। একটি টার্মিনাল চালু করে নীচের কমান্ডটি রান করুন(এখান থেকে কপি করে নিয়ে টার্মিনালে রাইট ক্লিক করে পেস্ট করে দিন):

Code: Select all

sudo apt-get install compiz compizconfig-backend-gconf compizconfig-settings-manager compiz-core compiz-fusion-plugins-extra compiz-fusion-plugins-main compiz-gnome compiz-plugins
ব্যাস, আপনার কম্পিজ ইনস্টল শেষ!
এবার Alt+F2 চেপে compiz –replace লিখে এন্টার চাপুন। সবকিছু ঠিকভাবে সেটআপ হয়ে থাকলে কিছুক্ষণের মধ্যেই সক্রিয় হয়ে যাবে আপনার কম্পিজ ফিউশন :)

সিস্টেম স্টার্টআপের সময় কম্পিজ ফিউশন স্বয়ংক্রিয়ভাবে সক্রিয় করতে চাইলে System>> Preferences>> Sessions এ গিয়ে স্টার্টআপ ট্যাবে এ্যাড বাটনে ক্লিক করুন। নতুন এন্ট্রিটির নাম দিন compiz fusion এবং কমান্ডের ঘরে compiz –replace লিখে OK করুন।

কম্পিজের সকল প্লাগইন নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন কম্পিজকনফিগ সেটিংস ম্যানেজার থেকে। এটি চালু করতে System>> Preferences>> Compizconfig Settings Manager এ ক্লিক করুন অথবা Alt+F2 চেপে ccsm লিখে এন্টার চাপুন।

সতর্কতা:
১। আপনার সিস্টেমের প্রসেসর স্পিড, গ্রাফিক্স মেমোরি বা র‍্যামের পরিমান কম হলে কম্পিজ ব্যবহার করবেন না। কম্পিজের ইফেক্সসমূহ সিস্টেমের গতি অনেকাংশে কমিয়ে দিতে পারে।
২। অপ্রয়োজনে অতিরিক্ত কম্পিজ প্লাগইন বা ইফেক্ট সক্রিয় রাখবেন না। যত বেশি ইফেক্ট সক্রিয় থাকবে সিস্টেম তত বেশি ধীর হয়ে পড়বে।
৩। অপেক্ষাকৃত স্বল্পগতি/ক্ষমতার কম্পিউটারে ভিডিও প্লেব্যাকের সময় কম্পিজ বন্ধ করে মেটাসিটি উইন্ডো ম্যানেজার সক্রিয় করে নিন। এটি করতে Alt+F2 চেপে metacity –replace লিখে এন্টার চাপুন। ভিডিও প্লেব্যাক শেষ হয়ে গেলে আবার Alt+F2 চেপে compiz –replace লিখে কম্পিজ ফিরিয়ে আনতে পারেন।
কম্পিজের ইফেক্টসমূহ ভিডিও প্লেব্যাকে সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। কাজেই ভিডিও প্লেব্যাকের সময় কম্পিজ সাময়িকভাবে বন্ধ রাখাই শ্রেয়।

আজকের মত এখানেই শেষ করছি আমার কম্পিজ বিশ্লেষণ। কারো কম্পিজ সংক্রান্ত কোন সমস্যা হলে জানাবেন, আমি এবং অন্যান্য অভিজ্ঞ লিনাক্স ব্যবহারকারীরা যথাসাধ্য সাহায্য করার চেষ্টা করবো।

এছাড়াও, সময়স্বল্পতার কারণে কম্পিজের সকল প্লাগইন সম্পর্কে লিখতে পারিনি। কেউ কোন নির্দিষ্ট প্লাগইন সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হলে জানাবেন, যতটুকু সম্ভব লেখার চেষ্টা করবো।

টপিকটি অনেক তারাহুরো করে লিখে ফেলেছি তাই ভুলত্রুটি থাকা স্বাভাবিক। কেউ কোন ভুল খুঁজে পেলে অবশ্যই ধরিয়ে দেবেন। :)

সবশেষে সবাইকে ধন্যবাদ লেখাটি পড়ার জন্য। আসুন আমরা লিনাক্সের চমৎকার বিষয়গুলো সম্পর্কে জানি এবং অন্যদের জানতে সাহায্য করি। লিনাক্স যে আর কমান্ড লাইন ভিত্তিক নয়, লিনাক্সেও আছে অত্যন্ত অসাধারণ এবং দৃষ্টিনন্দন আবহ যা শুধু অনর্থক শো-অফ এর জন্য নয় বরং ডেস্কটপ পরিবেশকে সাধারণের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী এবং ব্যবহারবান্ধব করে দিতে সক্ষম এ কথা সবাইকে জানানো সকল অভিজ্ঞ-অনভিজ্ঞ লিনাক্সপ্রেমির নৈতিক দায়িত্ব। :-p

শামীম
উপদেষ্টা ও সমন্বয়ক
Posts: 337
Joined: Mon Sep 10, 2007 1:54 pm
রক্তের গ্রুপ: O+
লাইসেন্স: by-nc-sa(Creative Commons)
স্ট্যাটাস: তেমন সুবিধার না .........................
পছন্দ করি: পরিবেশ, দূষন, স্বাস্থ্যসম্মত আবাসন, পানি সরবরাহ, আর্সেনিক, বর্জ্য ও আবর্জনা ব্যবস্থাপনা, বিকল্প জ্বালানী, টেকসই উন্নয়ন
Location: ঢাকা
Contact:

গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

Post by শামীম » Thu Aug 07, 2008 1:56 pm

দারুন রিভিউ। :thumb:

আমার কম্পুতে আলাদা গ্রাফিক্স কার্ড নাই .... তাই খালি উইন্ডো উওবল ইফেক্টটাই কাজ করে। কিন্তু সেটা ব্যাপার না --- এইটা দেখেই দুইজন উইন্ডোজ ব্যবহারকারী পাঙ্খা।

User avatar
জাহিদ সুমন
প্রযুক্তি মনষ্ক
Posts: 922
Joined: Sun May 25, 2008 6:35 pm
রক্তের গ্রুপ: A+
লাইসেন্স: by-nc-nd (Creative Commons)
Location: Bangladesh
Contact:

গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

Post by জাহিদ সুমন » Thu Aug 07, 2008 2:59 pm

চমৎকার লিখেছেন ভাই। আমি কম্পিজ ফিউশন নিয়ে এখানে আলোচনা দেখার পর ওয়েব এ কিছুটা ঢু মেরে ধারনা নিয়ে রেখেছিলাম - বিশেষ করে উইকিতে। আজ আপনার আর্টিকেল দেখে ধারনাটা আরো একটু ভাল হল। আচ্ছা একটা প্রশ্ন, যাদের আলাদা গ্রাফিক্স কার্ড নেই অর্থাৎ মাদারবোর্ডের বিল্টইন গ্রাফিক্স কার্ড এ চালায় আমার মত তাদের ক্ষেত্রে কি কোন ব্যবস্থা নেই। আমার Ram আছে ৭৬৮ মেঃবাঃ এবং প্রসেসর সেলেরন ২.৫৩ জিহার্জ। আমি কি ট্রাই করতে পারবো?

আপনার আর্টিকেলটিকে একটু ঘষেমেজে নিলে মনে হয় ভাল হবে। অল্প স্বল্প বানান ভুল আছে। তারপরও আপনাকে ধন্যবাদ সুন্দর আর্টিকেল মাতৃভাষা বাংলাতে লেখার জন্য।
লিনাক্স নিয়ে লিখছি-বাংলাতে আমার ব্লগে

স্বপ্নচারী
সমন্বয়ক
Posts: 817
Joined: Sat Sep 15, 2007 10:26 pm
Location: কভেন্ট্রি, ইংল্যান্ড
Contact:

গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

Post by স্বপ্নচারী » Thu Aug 07, 2008 5:02 pm

উইন্ডো ম্যানেজমেন্ট -এ আমার পছন্দ কাভার ফ্লো আর স্কেল। দুইটাই ম্যাকে ব্যবহার করি কিনা! :P

যারা ইন্টেল গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার করেন তারা অবশ্যই envy ইনস্টল করবেন না। envy শুধুমাত্র এনভিডার জন্য, তবে এটিআই-ওয়ালারাও ব্যবহার করতে পারেন যদি না উবুন্তু নিজে না পায় ঠিকমত।

দারুণ লেখা হয়েছে। কিছু বানান ভুল আছে। সময় করে একবার চোখ বুলিয়ে নিও।

User avatar
কারিগর
সমন্বয়ক
Posts: 2439
Joined: Mon Mar 31, 2008 6:57 am
রক্তের গ্রুপ: A+
লাইসেন্স: সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
স্ট্যাটাস: ক্লান্ত,আহত, প্রায় নিহত, বিরক্ত, কিছু সঞ্জীবনী টিকা দরকার!
পছন্দ করি: মানুষকে বলা যায় এরকম সব কিছুই!
Location: লন্ডন , ইংল্যান্ড

গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

Post by কারিগর » Thu Aug 07, 2008 6:14 pm

আলোকিত, হাসিন ভাই এর সাথে যোগাযোগ করো। উনি, তোমাকে কোথাও ব্যবস্থা করে দিতে পারেন, বই লেখার জন্য। এরকম টিপস+টিউটোরিয়ালের সাইট/বই ভালো চলবে। রনি ভাইরেও বলতে পারো আগ্রহ থাকলে, উনি তো নিজেই সিসটেকে আছেন! গুড জব ম্যান!

জাহিদ ভাই, অনবোর্ড থাকলেও চালাতে পারবেন, কিন্তু, একটু সজাগ থাকতে হবে। মানে বুঝে শুনে চালালে ভালো স্পীড পাবেন। আমি আমার ল্যাপটপের অনবোর্ড দিয়েই কম্পিজ ফিউশন চালাই।
_________________________________________________

সকলের অবগতির জন্য জানাচ্ছি , অনিবার্য কারণ বশত আমার পুরনো ব্লগ সাইটটি এখন আর আমি চালাচ্ছি না। উল্লেখ্য যে আমার পুরনো ডোমেইনটি এখন আর আমার মালিকানায় নেই।

User avatar
আলোকিত
সমন্বয়ক
Posts: 3424
Joined: Wed Sep 19, 2007 10:16 pm
লাইসেন্স: by-nc-nd (Creative Commons)
পছন্দ করি: কেডিই ৪, উবুন্টু, ফায়ারফক্স
Location: ঢাকা, বাংলাদেশ
Contact:

গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

Post by আলোকিত » Thu Aug 07, 2008 6:19 pm

ধন্যবাদ সবাইকে :)
স্বপ্নচারী wrote: যারা ইন্টেল গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার করেন তারা অবশ্যই envy ইনস্টল করবেন না। envy শুধুমাত্র এনভিডার জন্য, তবে এটিআই-ওয়ালারাও ব্যবহার করতে পারেন যদি না উবুন্তু নিজে না পায় ঠিকমত।
হুমম এটিআই এবং এনভিডা ব্যবহারকারীরা অবশ্যই এনভিএনজি দিয়ে ইনস্টল করবেন। উবুন্টু হার্ডওয়্যার ম্যানেজার থেকেও ইনস্টল করা যায় কিন্তু সেটাতে ডিপেন্ডেন্সি এবং কার্ণেল কম্পাইলে সমস্যা হতে পারে। আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকেই বলছি।
আর অন্যান্য ব্র্যান্ডের গ্রাফিক্স কার্ড ড্রাইভার উবুন্টু নিজেই পায়, সর্বশেষ আপডেট আসলে আপডেটে প্রদর্শন করে। কোন সমস্যা হয় না।
দারুণ লেখা হয়েছে। কিছু বানান ভুল আছে। সময় করে একবার চোখ বুলিয়ে নিও।
ধন্যবাদ :)
হুমম অনেকদিন লেখার হাত এবং ধৈর্য্য কোনটাই ছিলনা, সবাই অনুরোধ করার কারণে একরাতে এটা লিখে ফেলেছি।
সমন্বয়করা কোন গুরুতর বানান ভুল খুঁজে পেলে অনুগ্রহ করে সম্পাদনা করে দেবেন।
কারিগর wrote:আলোকিত, হাসিন ভাই এর সাথে যোগাযোগ করো। উনি, তোমাকে কোথাও ব্যবস্থা করে দিতে পারেন, বই লেখার জন্য। এরকম টিপস+টিউটোরিয়ালের সাইট/বই ভালো চলবে। রনি ভাইরেও বলতে পারো আগ্রহ থাকলে, উনি তো নিজেই সিসটেকে আছেন! গুড জব ম্যান!
নাহ আপাতত ফোরামেই লিখে যাবো। সেই সাথে লেখাগুলো আরও সম্পাদনা করে এবং মানসম্পন্ন করে ব্যক্তিগত ব্লগ এবং উবুন্টু বাংলাদেশ সাইটে পোস্ট করবো।
আপাতত তেমন সিরিয়াসলি লেখালেখি শুরু করার ইচ্ছা নাই। পড়াশুনা আগে, অন্যান্য সবকিছু এর পরে।

আশাবাদী
সমন্বয়ক
Posts: 3137
Joined: Mon Feb 25, 2008 1:32 am
রক্তের গ্রুপ: O+
লাইসেন্স: by-nc-sa(Creative Commons)
স্ট্যাটাস: মাথা ব্যাথা ঘাড় ব্যাথা, ঘাড় থেকে মাথাটা ছেটে ফেলবো কি??
পছন্দ করি: লিনাক্স, ওপেনসোর্স, আড্ডা
Location: ঢাকা
Contact:

গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

Post by আশাবাদী » Thu Aug 07, 2008 7:26 pm

@আলোকিত। ফাঁড়ার উপর আছি। বেশি কিছু বলছি না। = ধন্যবাদ,

আমার প্রত্যাশাকেও ছাড়িয়ে গেছো :) শাবাস।
তবে লেখাটার শুরু কাঠখোট্টা হয়েছিলো। আন্তরিকতার (ব্যক্তিগত মতামত) প্রয়োজন।

লেখাটা ঘষা মাজা করার পর দিয়ো উবুন্টু বাংলাদেশ সাইটে প্রকাশ করতে আগ্রহী। সেই সাথে মুক্ত.অর্গে দাও। ফয়শাল ভাইয়ের (ডার্কলর্ড) সাথে কথা বলো । যতবেশি মানুষ দেখবে ততো ভালো হবে।

ও এটা দেখি পর্ব ১।
পর্ব ২ ৩ ৪ ৫ ৬ ৭ ৮ ৯ ১০..........................এর জন্য আগে থেকেই ধন্যবাদ জানায় রাখলাম। (তা কবে দিচ্ছ??)

পড়াশোনার পাশাপাশি সব করা যায়। পড়াশোনার কথায় আমি দৌড় দিলাম। পরে কথা হবে। :)
নতুন টপিক পোস্ট করার আগে একবার ভেবে দেখুন... ফোরামে ঝাড়ি খাওয়ার মহা মহা উপায়! উবুন্টু লিনাক্স ইন্ডেক্স

অনুগ্রহ করে কোন নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গের আচরণ দ্বারা প্রভাবিত হয়ে সমগ্র বাংলাদেশী/বাঙ্গালী জাতি সম্পর্কে কটু মন্তব্য করবেন না

আমি বাঙালী, আমি বাংলাদেশী, আমি দক্ষিণ এশীয়.... কিন্তু সবার উপরে আমি একজন মানুষ... এটিই আমার পরিচয়।

User avatar
স‌াকিব
নিয়মিত সদস্য
Posts: 157
Joined: Fri Dec 07, 2007 5:33 pm
রক্তের গ্রুপ: A+
Location: ঢাকা, বাংলাদেশ।
Contact:

গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

Post by স‌াকিব » Thu Aug 07, 2008 10:06 pm

দারুন...... :thumb: :thumb: :thumb: :thumb: :thumb:

অনেক কিছুই নতুন লাগল আমার কাছে।

User avatar
আলোকিত
সমন্বয়ক
Posts: 3424
Joined: Wed Sep 19, 2007 10:16 pm
লাইসেন্স: by-nc-nd (Creative Commons)
পছন্দ করি: কেডিই ৪, উবুন্টু, ফায়ারফক্স
Location: ঢাকা, বাংলাদেশ
Contact:

গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

Post by আলোকিত » Thu Aug 07, 2008 10:38 pm

আশাবাদী wrote:@আলোকিত। ফাঁড়ার উপর আছি। বেশি কিছু বলছি না। = ধন্যবাদ

আমার প্রত্যাশাকেও ছাড়িয়ে গেছো :) শাবাস।
তবে লেখাটার শুরু কাঠখোট্টা হয়েছিলো। আন্তরিকতার (ব্যক্তিগত মতামত) প্রয়োজন।
আমাকে অনেকে রোবট বলে ডাকে। মাঝখানে বোধহয় কিছুদিন মানুষ হয়েছিলাম আবার রোবট হয়ে গেছি :z
যাইহোক, আমার এই লেখার পেছনে আপনার অবদানও অনেক। আপনি না গুতাইলে আলসেমী করে লেখা শুরু করতাম না, সেজন্য আপনার খাওয়ার খাতায় আমার পক্ষ থেকে একটা আইসক্রিম! :D

@সাকিব ভাই: ধন্যবাদ!

আশাবাদী
সমন্বয়ক
Posts: 3137
Joined: Mon Feb 25, 2008 1:32 am
রক্তের গ্রুপ: O+
লাইসেন্স: by-nc-sa(Creative Commons)
স্ট্যাটাস: মাথা ব্যাথা ঘাড় ব্যাথা, ঘাড় থেকে মাথাটা ছেটে ফেলবো কি??
পছন্দ করি: লিনাক্স, ওপেনসোর্স, আড্ডা
Location: ঢাকা
Contact:

গ্রাফিক্যাল লিনাক্স, পর্ব- ১: কম্পিজ ফিউশন

Post by আশাবাদী » Thu Aug 07, 2008 11:47 pm

হুমমম।।।
রোবট??
তাহলে তো ভালো যা কমান্ড দেয়া হবে সেটা পালন করবে :)

কমান্ড: লেখা চালিয়ে যাও প্রতিদিন ১০ টা এমন সুন্দর লেখা উপহার দিবে।
রেসপন্ড: এখন থেকে প্রতিদিন ‍১০টা লেখা পোস্ট দেয়া হবে। কমান্ড পরিবর্তন কার্যকর করতে অনুগ্রহ পূর্বক সিস্টেম রিস্টার্ট করুন।
কমান্ড: রিস্টার্ট
রেসপন্ড: রিস্টার্ট করা হচ্ছে..........

সিস্টেম চালু হয়েছে।
সর্বশেষ কমান্ড অনুযায়ী লেখা চালু করা হচ্ছে.........
লেখা চালু হয়েছে।
(কীবোর্ডের খট খট খট খট খট খট খট খট)

লেখা শুরু করলেই হবে না চালিয়ে যাও। তুমি আমারে আইস্ক্রীম খাওয়াও :D
আমি তোমাকে কফিপ্যাক কিনে দিবো যাতে রাতে জেগে এরকম সব দারুন লেখা দিতে পারো :P
নতুন টপিক পোস্ট করার আগে একবার ভেবে দেখুন... ফোরামে ঝাড়ি খাওয়ার মহা মহা উপায়! উবুন্টু লিনাক্স ইন্ডেক্স

অনুগ্রহ করে কোন নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গের আচরণ দ্বারা প্রভাবিত হয়ে সমগ্র বাংলাদেশী/বাঙ্গালী জাতি সম্পর্কে কটু মন্তব্য করবেন না

আমি বাঙালী, আমি বাংলাদেশী, আমি দক্ষিণ এশীয়.... কিন্তু সবার উপরে আমি একজন মানুষ... এটিই আমার পরিচয়।

Post Reply

Return to “লিনাক্স”