المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

বিভিন্ন প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার সম্পর্কিত আলোচনা এবং রিভিউ।
User avatar
সগির আহমাদ চৌধুরী
নিবন্ধিত সদস্য
Posts: 43
Joined: Mon Jun 29, 2009 1:45 am
রক্তের গ্রুপ: O-
পছন্দ করি: মুজিলা, উইন্ডোজ
Location: 303, কেএম ভবন (3 তলা), 11, আন্দরকিল্লা, চট্টগ্রাম-4000
Contact:

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

Post by সগির আহমাদ চৌধুরী » Fri Feb 19, 2010 2:35 pm

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)
Image
المكتبة (আল-মাকতাবা) অর্থ গ্রন্থগার। الشاملة(আশ-শামিলা) অর্থ শামিল, সঞ্চয়, সংগ্রহ, সংকলন বা সমগ্র। আধুনিক আরবি ভাষায় প্রচলিত অর্থে শামিলা অর্থ বিশ্বকোষ। সে-হিসেবে المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা) অর্থ গ্রন্থের বিশ্বেকোষ।
المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা) কী?
المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা) হলো একটি আরবি ভাষাভিত্তিক ওপেন ই-লাইব্রেরি। গোটা আরববিশ্বতো বটেই, সারা মুসলিম-বিশ্বের ইসলামিক স্কলার, গবেষক এবং আলিমদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় এ-লাইব্রেরিটি। বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামিক গবেষণা-প্রতিষ্ঠান, দারুল ইফ্তা ও প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের জন্য অতিপ্রয়োজনীয় একটি লাইব্রেরি এটি। রেফারেন্স, সহজলভ্যতা, অনুসন্ধান (ঝবধৎপয) ব্যবস্থা এবং ব্যবহারকারীর ইচ্ছানুযায়ী পরিবর্তন করতে পারার ক্ষেত্রে এটির জুড়ি মেলা ভার। বর্তমানে এটি ৩.৩৮ ভার্সন পর্যন্ত আপডেট হয়েছে। এতে দুর্বল, দু®প্রাপ্য; ছুঁয়ে দেখার সাধ্যও নেই এমন অনেকগ্রন্থসহ প্রায় 11235 হাজার কিতাব অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। প্রকাশনাজগতের স্বর্গরাজ্য বৈরুত-কায়রোর নামি-দামি প্রকাশনা-প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্রকাশিত উক্ত কিতাবসমূহের বর্তমান বাজার রেট হিসেব করলে এ-লাইব্রেরিতে অন্তর্ভুক্ত কিতাবসমূহের দাম পড়বে প্রায় চার কোটি টাকা। এতে অন্তভুর্ক্ত কিতাবের গড়ে 5 লাইনের সংক্ষিপ্ত পরিচয় (বইয়ের নাম, লেখকের নাম, প্রকাশনা জগতের নাম ও ঠিকানা) দিয়ে যে তালিকা দেওয়া হয়েছে শুধু তা-ই এফোর সাইজের পেইজের প্রায় 2931 পৃষ্ঠার।
আকিদা, তাফসির, কুরআনিক সাইন্স, হাদিস, হাদিসের ব্যাখ্যাগ্রন্থ, হাদিস সাইন্স, ফিকহ, উসুলে ফিকহ, সাধারণ আইন, রাজনীতি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, অর্থনীতি, তাসাওফ, ফতোয়া, সিরাতুন্নবী, জীবনী, ইতিহাস, ভূগোল, সাহিত্য, অভিধান, অভিধান-বিজ্ঞান, চিকিৎসা বিজ্ঞান, ভাষা-বিজ্ঞান, যুক্তিবিদ্যা, দর্শন, বিশ্বকোষসংকলন-সহ প্রায় ১৩5টি পৃথক শিরোনামে ইমাম, মুজতাহিদ, ইসলামিক পণ্ডিত, সাধারণ গবেষক, প্রখ্যাত চিন্তাবিদসহ ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলের বই এখানে শামিল হয়েছে।
ব্যক্তিগতভাবে আমি এ-লাইব্রেরিটি ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করেছি। এটি সাইজে ২1.২ GB। আপনারা হয়তো খেয়াল করে থাকবেন যে, আমি বলেছি এ-লাইব্রেরি অত্যন্ত সহজলভ্য। এর অর্থ এটি টাকা দিয়ে কিনতে হয় নাÑএমন নয়। হাঁ! টাকা দিয়ে কিনতে হয় না। আপনি একদম ফ্রিতে সংগ্রহ করতে পারেন এটি। তবে আমি সহজলভ্য বলেছি অন্য কারণে। তা হলোÑ এটি সাইজে অত্যন্ত ছোট। আপনারা হয়তো অবাক হচ্ছেন যে, লাইব্রেরিটির সাইজ ২1.২ এই হওয়ার পরও আমি এটিকে স্বল্প সাইজের বলছি। হাঁ! অবশ্যই। উদারণ দিয়ে বলি... যেমন ধরুন বাংলাপিডিয়া। এর জন্য একটি সিডি প্রয়োজন। অথচ বাংলাপিডিয়ার চেয়ে আরও বিশালাকারের অনেক বিশ্বকোষ এ-লাইব্রেরির নিজস্ব ফরম্যাটে (bok) মাত্র ১ MB-এর চেয়ে কমে চলে আসে। আমি একবার সিহাহ সিত্তার (সহিহ হাদিসের প্রসিদ্ধ ছয়টি কিতাব) একটি সিডি কিনেছিলাম। এর সাইজ ছিল ৪৫৪ MB। অথচ bok ফরম্যাটে এর সাইজ দাড়ালো মাত্র ৬.৮৫ MB-তে।
নেপথ্যে যাদের অবদান
এটি ডেভলাপের পেছনে موقع المكتبة الشاملة http://www.shamela.ws" onclick="window.open(this.href);return false;, موقع الموسوعة الشاملة http://www.islamport.com" onclick="window.open(this.href);return false;, موقع مكتبة المسجد النبوي الشريف http://www.mktaba.org" onclick="window.open(this.href);return false;, موقع ملتقى أهل الحديث http://www.ahlalhdeeth.com" onclick="window.open(this.href);return false;, موقع مكتبة المشكاة الإسلام http://www.almeshkat.net" onclick="window.open(this.href);return false;, موقع مكتبة صيد الفوائد http://www.saaid.net" onclick="window.open(this.href);return false;, موقع مكتبة طريق الإسلام http://www.islamway.com-" onclick="window.open(this.href);return false;সহ বেশ কয়েকটি ইসলামিক সাইট এবং তাদের অসংখ্য ভিজিটর স্ব-উদ্যোগে কাজ করছেন। তবে কেন্দ্রীয় ভূমিকাটি পালন করছে موقع المكتبة الشاملة http://www.shamela.ws" onclick="window.open(this.href);return false; সাইট। মূলত তারাই এ-(البرنامج) প্রোগ্রামটি নির্মাণ করেছে এবং এর নিয়মিত আপডেট করে থাকে। বাকি কাজগুলো ভিজিটরদের। ভিজিটরদের কাজগুলো নিম্নরূপ:
. মিসরের আল-আযহার বিশ্ববিদ্যালয়, পবিত্র মক্কা শরিফের উম্মুল র্কুরা বিশ্ববিদ্যালয়, মদিনা ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়সহ বাগদাদ, কায়রো, ইস্তাম্বুল, বৈরুতের পুরোনো সংগ্রহসালা ও লাইব্রেরিতে সংরক্ষিত দুর্লব-দু®প্রাপ্য ((مخطوطات পাণ্ডুলিপি বা হাতেলেখা বই সংগ্রহপূর্বক স্ক্যান করে উপর্যুক্ত সাইটসমূহে আপলোড করা অনেক ভিজিটরদের প্রথম কাজ।
. আর কোনো কোনো ভিজিটরদের কাজ হলো অন্যের আপলোড করা ((مخطوطات পাণ্ডুলিপি বা হাতেলেখা বইগুলো ডাউনলোড করে পাঠোদ্ধারপূর্বক তা অ্যারাবিক ইউকোড ফন্টে টাইপ করে txt, rtf, wri; doc, dot; htm, html, shtml, php, asp ইত্যাদি যেকোনো ফরম্যাটে পুনরায় উপর্যুক্ত কোনো সাইটে আপলোড করা।
. তৃতীয় পযার্য়ে অন্যরা সেটি ডাউনলোড করে মাকতাবায়ে শামিলায় অন্তভুর্ক্ত করে নেয়। AšÍfz©³ K‡i †bq| বেশ আশ্চর্যের বিষয় হলো, কাজগুলো কোনো পরিকল্পিত নয়। পরষ্পরের মাঝে শেয়ার করার মাধ্যমে এ-সুবিশাল লাইব্রেরি গড়ে উঠেছে। কেউ প্রয়োজনে আর কেউবা সখ করে এ-মহান কাজে অংশগ্রহণ করছে।
যেমন আমার কথা বলি। আমি একটি প্রকাশনা-প্রতিষ্ঠানে কমপিউটার সেকশনে কাজ করি। প্রতিষ্ঠান সিদ্ধান্ত নেয় উপমহাদেশের প্রখ্যাত মুহাদ্দিস আল্লামা শায়খ আবদুল হক মুহাদ্দিসে দেহলবির ماثبت بالسنة من أعمال السنة-নামক আরবি কিতাবখানির বাংলা অনুবাদপূর্বক বাংলাভাষাবাসী মুসলমানদের জন্য প্রকাশ করবে। এটি একটি মুসলিমদের সারা বছরের আমল-সম্পর্কিত হাদিসের কিতাব। এর অনুবাদের জন্য একটি উরদু কপি সংগ্রহ করে অনুবাদকের নিকট হস্তান্তর করা হয়। অনূদিত হয়ে আসার এমডি সাহেব বললেন, হাদিসগুলো আরবিতে সংযোজন করতে হবে। কিন্তু উরদু কপিতে আরবির নাম-নিশানা পর্যন্ত নেই। তাহলে সংযোজন করা যায় কিভাবে। আর তার মূল আরবি কপি কোথাও পাওয়া যায় না। তাই দায়িত্ব পড়ল আমার ওপর। যে করেই হোক ইন্টারনেট থেকে সেটি সংগ্রহ করতে হবে। কথা অনুযায়ী ইন্টারনেট গেড়ে একটি পিডিএফ ফাইল পাওয়া গেল। সেটির প্রিন্ট বের করে সে-অনুযায়ী মাকতাবায়ে শামিলা ব্যবহার করে হাদিসগুলো অন্যান্য হাদিসের কিতাব থেকে সংযোজন করলাম। গ্রন্থটি পূর্ণাঙ্গ হওয়ার পর হাদিস ব্যতীত যে-সামান্য আরবি ইবারত ছিল তা আমি টাইপ করে বাংলার পাশাপাশি একটি আরবি কপিও তৈরি করি এবং মাকতাবায়ে শামিলায় অন্তর্ভুক্ত করে ফেলি। আশি করি এটি এখন আমি উপর্যুক্ত কোনো সাইটে আপলোড করব। এভাবেই কিন্তু এ-সুবিশাল লাইব্রেরি গড়ে উঠেছে। আপনিও ইচ্ছা করলে txt, rtf, wri; doc, dot; htm, html, shtml, php, asp ফরম্যাটের যেকোনো ফাইল মাকতাবায়ে শামিলায় অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন।
المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)-এর ভাষা
এ-লাইব্রেরিটি মূলত অ্যারাবিক হলেও ইংরেজি-ফ্র্যান্স-স্পেনিশ-জার্মানি-তুর্কি ভাষার জন্যও সমান উপযোগী। কিছুটা সমস্যা ছাড়া উরদু ও ফারসি ভাষার জন্য মোটামোটি উপযোগী এ-লাইব্রেরি। মূল ব্যাপারটি কিন্তু নির্ভর করে ফন্টের ওপর। বইয়ের টেক্সগুলো দেখার জন্য যে-ফন্ট ব্যবহার করা হয় সেটিতে অ্যারাবিক + যত ভাষা অন্তর্ভুক্ত থাকবে তত ভাষার বই এ-লাইব্রেরির জন্য উপযোগী। সাধারণভাবে এ-লাইব্রেরিতে Traditional Arabic ফন্টটি ব্যবহৃত হয়ে থাকে। এ-ফন্টটিতে আরবি ছাড়াও ইংরেজি-ফ্র্যান্স-স্পেনিশ-জার্মানি-তুর্কি ভাষার হরফও অন্তর্ভুক্ত আছে। এতে করে এ-লাইব্রেরি উক্ত ভাষাসমূহের জন্য উপযোগী ছিল। কিন্তু ব্যাপারটি ফারসি ও উরদু ভাষাবাসীদের জন্য কিছুতেই মেনে নেওয়ার ছিল না। কারণ ইসলামি বই-পুস্তক-কিতাবের বিশাল অংশ ফারসি ও উরদু ভাষায় রচিত। ভারত উপমহাদেশের দেওবন্দ-নদওয়াসহ বিশ্ববিখ্যাত মাদ্রাসাসমূহ ফারসি ও উরদুবাসী এবং ইসলামি চিন্তাবিদ ও গবেষকরা সাধারণভাবে ফারসি ও উরদু সম্যক ধারণা রাখেন। এ-পর্যায়ে মাকতাবায়ে শামেলায় ফারসি ও উরদু ব্যবহার করতে না-পারাটা বেশ কষ্টের ছিল। সুখের খবর হলো কিছুদিন পূর্বে পাকিস্তানের উরদু মজলিস ফোরামের জনৈক ভিজিটর মাকতাবায়ে শামেলার জন্য এমন একটি ইউনিকোড ফন্ট (Nastaleeq Like) তৈরি করেছে যাতে উপর্যুক্ত ভাষার হরফগুলোর পাশাপাশি ফারসি ও উরদু ভাষার হরফগুলো অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। ফলে কিছু সমস্যা ছাড়া ফারসি ও উরদুর জন্যও মাকাতাবায়ে শামেলা এখন উপযোগী হয়েছে। সমস্যা যেটা থেকে গেলো সেটি হলো ম্যানু ও কিতাবের নাম ইত্যাদি ফারসি বা উরদুতে লেখা যায় না। তা কেবল আরবি-ইংলিশ বা অন্যান্য ভাষাগুলোতে লিখতে হয়।
এখন আসি আমার প্রিয় মাতৃভাষা বাংলা ব্যবহারের ক্ষেত্রে আমার কিছু অভিজ্ঞতার কথায়। প্রথমত. বাংলা ইউনিকোড ফন্ট এ-লাইব্রেরিতে মোটেই ব্যবহার উপযোগী নয়। বাংলা ইউনিকোডের একটি ওয়ার্ড ডকুম্যান্ট মাকতাবায়ে শামিলায় অন্তর্ভুক্ত করে দেখলাম লেখাগুলোর অবস্থা হলো এমন: ??????????????????????????????????????????????????????????????????????। ভাবলাম হয়তো ফন্ট পরিবর্তন করলে এ সমস্যার সমাধান হবে। না! তো। Traditional Arabic-এর জায়গায় SolaimanLipi দিয়ে পরিবর্তন করে দেখলাম। আরবি-ইংরেজি লেখা পড়া যায় বটে কিন্তু বাংলা রূপ উপর্যুক্তই থেকে গেল। দ্বিতীয়ত. বিজয়ের সুন্বতি ফন্ট দিয়ে লেখা একটি ওয়ার্ড ডকুম্যান্ট মাকতাবায়ে শামিলায় অন্তর্ভুক্ত করলাম। আর Traditional Arabic- এর জায়গায় SutonnyMJ দিয়ে পরিবর্তন করে দিলাম। বেশ সুন্দর তো। অবাক হয়ে দেখলাম বাংলা বেশ সুন্দরভাবে পড়া যাচ্ছে, কপি করা যাচ্ছে, এমনকি Search করাও যাচ্ছে। তবে সমস্যা যেটি থেকে গেলো সেটি হলো আরবি-ইংরেজি ও অন্যান্য ভাষার রূপবিকৃতি। ইংরেজি ও অন্যান্য ভাষার হরফগুলোর অবস্থ হলো কোনো ইংরেজি ডকুম্যান্ট বিজয় ফন্ট দিয়ে পরিবর্তন করলে যেমন দেখায় তেমনি। এই যেÑ ঞযরং য়ঁবংঃরড়হ রং ড়ভঃবহ যঁৎষবফ ধঃ গঁংষরসং, বরঃযবৎ ফরৎবপঃষু ড়ৎ রহফরৎবপঃষু, ফঁৎরহম ধহু ফরংপঁংংরড়হ ড়হ ৎবষরমরড়হ ড়ৎ ড়িৎষফ ধভভধরৎং. গঁংষরস ংঃবৎবড়ঃুঢ়বং ধৎব ঢ়বৎঢ়বঃঁধঃবফ রহ বাবৎু ভড়ৎস ড়ভ ঃযব সবফরধ ধপপড়সঢ়ধহরবফ নু মৎড়ংং সরংরহভড়ৎসধঃরড়হ ধনড়ঁঃ ওংষধস ধহফ গঁংষরসং. ওহ ভধপঃ, ংঁপয সরংরহভড়ৎসধঃরড়হ ধহফ ভধষংব ঢ়ৎড়ঢ়ধমধহফধ ড়ভঃবহ ষবধফং ঃড় ফরংপৎরসরহধঃরড়হ ধহফ ধপঃং ড়ভ ারড়ষবহপব ধমধরহংঃ গঁংষরসং. অ পধংব রহ ঢ়ড়রহঃ রং ঃযব ধহঃর-গঁংষরস পধসঢ়ধরমহ রহ ঃযব অসবৎরপধহ সবফরধ ভড়ষষড়রিহম ঃযব ঙশষধযড়সধ নড়সন নষধংঃ, যিবৎব ঃযব ঢ়ৎবংং ধিং য়ঁরপশ ঃড় ফবপষধৎব ধ ‘গরফফষব ঊধংঃবৎহ পড়হংঢ়রৎধপু’ নবযরহফ ঃযব ধঃঃধপশ. ঞযব পঁষঢ়ৎরঃ ধিং ষধঃবৎ রফবহঃরভরবফ ধং ধ ংড়ষফরবৎ ভৎড়স ঃযব অসবৎরপধহ অৎসবফ ঋড়ৎপবং. এ-অবস্থা আর কি।
এখন আমাদের প্রযুক্তি ফোরামের বন্ধুরা যদি পারেন! একটি ফন্ট তৈরি করতে যেখানে উপর্যুক্ত ভাষার হরফগুলোর পাশাপাশি বাংলা হরফও অন্তর্ভুক্ত থাকবে তাহলে মাকতাবায়ে শামিলা আমাদেরও উপযোগী হবে। হাঁ! আরও অনেক কাজ আছে। যেহেতু এ-লাইব্রেরি ওপেন সেহেতু এর বাংলা অনুবাদের কাজটাও করা যেতে পারে। আসুন! দেখি পরস্পর সহযোগী হয়ে বাংলা ভাষার জন্য মাকতাবায়ে শামিলার ধারণাকে কাজে লাগিয়ে এ-ধরনের বা বিকল্প কোনো ই-লাইব্রেরি গড়ে তুলতে পারি কিনা।
জ্ঞতব্য
ইন্টারনেটে ই-বুক বলতে আমরা সাধারণত বিভিন্ন বইয়ের পিডিএফ ডকুম্যান্টই পেয়ে থাকি। যেগুলো মূল বই স্ক্যান করে বা টাইপ করার পর পিডিএফ করা। আর কিছু আছে যেগুলো ই-বুকশপ প্রোগ্রাম দিয়ে তৈরি। এ-ধরনের ই-বুক বাংলা ভাষার ক্ষেত্রে আমার এখনও চোখে পড়েনি। বর্তমান যুগের মুসলিম ফকিহ ড. শায়খ মুহাম্মদ বিন সালিহ আল-ওসায়মিনের حقوق دعت إليها الفطرة وقررتها الشريعة, رسالة حجاب, صفة الحج والعمرة; এ-তিনটি কিতাবের বাংলা অনুবাদ উপর্যুক্ত ধরনের ই-বুকে পেয়েছি। তবে এতে কপি-সার্চ ব্যবস্থা নেই। মনে হয়েছে লেখাগুলো স্ক্যানিং করা। পক্ষান্তরে আরবি ও অন্যান্য ভাষার এ-ধরনের ই-বুকগুলোতে কপি-সার্চ ব্যবস্থা থাকে। আর কিছু ই-বুক আমার কাছে ওয়ার্ড ডকুম্যান্ট। আর কতিপয় ই-বুক হলো সফটওয়্যার সিস্টেম। এগুলো চালাতে সিডিটি কমপিউটারের ডিস্কে ভরে রাখতে হয়, কমপিউটারে কপি করে রাখলেও হয় না। যেমনÑ বাংলাপিডিয়া।
আমি মনে করি মাকতাবায়ে শামিলার bok ফরম্যাট উপর্যুক্ত সব ধরনের ই-বুক সিস্টেমকে পিছনে ফেলে দিয়েছে। পিডিএফ ফাইল যেখানে বেশ সাইজের হয় এবং কপি-সার্চের ব্যবস্থা থাকে না সেখানে মাকতাবায়ে শামিলার bok ফরম্যাট হয় নামমাত্র সাইজের। পাশাপাশি কপি-সার্চের ব্যবস্থাও থাকে। আর ই-বুকশপ প্রোগ্রাম দিয়ে তৈরি ই-বুক বা সফটওয়্যার তৈরি তো ব্যয়সাধ্য ব্যাপার। পক্ষান্তরে মাকতাবায়ে শামিলার bok ফরম্যাটে কোনো ব্যয়-খরচ ছাড়াই আপনি আপনার txt, rtf, wri; doc, dot; htm, html, shtml, php, asp ফরম্যাটের যেকোনো ডকুম্যান্টকে মাকতাবায়ে শামিলায় অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন।
মধ্যপ্রাচ্যের লেখক, গবেষক, চিন্তাবিদ ও বুদ্ধিজীবীরা বোধকরি একটু নন-কমার্শিয়াল। তাদের অধিকাংশই তাদের মূল্যবান রচনা, প্রবন্ধ, নিবন্ধ, গবেষণাপত্র কাগজে ছেপে বেচবার আগেই ইন্টারনেটে প্রকাশ করে থাকেন। যেমনÑ ড. ইওসুফ আল-কারযাবী (ফকিহ), ড. নজিব আল-কিলানি (ঔপ্যাসিক), ড. মুহাম্মদ কুতুব (সমাজবিজ্ঞানী), ড. আলি মুহাম্মদ আস-সুল্লাবি (ঐতিহাসিক), ড. আয়িয বিন আবদিল্লাহ আল-করনি (মনোবিজ্ঞানী), ড. সায়িদ বিন আলি বিন ওহাফ আল-কাহতানি (ইসলামি চিন্তাবিদ), ড. হারুন ইয়াহইয়া (মুসলিম বিজ্ঞানী), ড. আবদুলি করিম যায়দান (রাষ্ট্রবিজ্ঞানী) ও ড. নায়িফ আশ-শহুদ (বিশিষ্ট গবেষক)সহ আরও অনেক বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গ তারা তাদের গবেষণাপত্র কাগজে মুদ্রণের আগেই পাঠকদের জন্য ইন্টারনেটে ছেড়ে দেন। আর তা bok ও doc এ দু’ফরম্যাটেই হয়ে থাকে। শেষোক্ত ব্যক্তি ড. নায়িফ আশ-শহুদ তার রচনার সংখ্যা ২০০’র ওপরে। এতে ৭টি বিশ্বকোষ আছে যার প্রতিটি ৫ থেকে ১২ হাজার পৃষ্ঠার। বিভিন্ন বিষয়ে তার এসব মূল্যবান বিশ্বকোষ এখনো বাজারে আসেনি। ইন্টারনেট এবং মাকতাবায়ে শামিলার সুবাধে তিনি এবং তার রচনা আমার কাছে বেশ মূল্যবান।
কাজেই যদি পারা যায়Ñ মাকতাবায়ে শামিলার ধারণাকে কাজে লাগিয়ে বাংলা ভাষার জন্য কোনো ই-লাইব্রেরি গড়ে তুলতে তাহলে তা বেশ মহৎ কাজ হবে। আমি নিজে প্রযুক্তিবিদ নই বা সফটওয়্যার নির্মাণের ব্যাপারে আমার কোনো অভিজ্ঞতা নেই। কেউ এগিয়ে আসলে আমি তাকে যে সহযোগিতাটুকু করতে পারি তাহলো মাকতাবায়ে শামিলার বিভিন্ন ম্যানু ইত্যাদির আরবির বাংলা অনুবাদ করে দিতে পারি। মূল প্রোগ্রাম ডাউনলোড করতে পারেন এখান থেকে http://www.shamela.ws/download.php|" onclick="window.open(this.href);return false; সাইজ মাত্র 17 এমবি।
সগির আহমদ চৌধুরী
চট্টগ্রাম, 01819-353896
Last edited by সগির আহমাদ চৌধুরী on Tue May 18, 2010 8:37 am, edited 1 time in total.

User avatar
জাহিদ সুমন
প্রযুক্তি মনষ্ক
Posts: 922
Joined: Sun May 25, 2008 6:35 pm
রক্তের গ্রুপ: A+
লাইসেন্স: by-nc-nd (Creative Commons)
Location: Bangladesh
Contact:

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

Post by জাহিদ সুমন » Wed Feb 24, 2010 3:47 pm

আপনার চমৎকার তথ্যবহুল লেখাটি আরবী ভাষা ও কিতাব নিয়ে গবেষনাকারীদের কাজে লাগবে নিঃসন্দেহে। দর্শন ও বিজ্ঞানের যে সমৃদ্ধ গবেষনাধর্মী কাজ মুসলিমগন করে গেছেন অতীতে এ অনলাইন সংগ্রহের মাধ্যমে তার বিভিন্ন দিক উম্মোচিত হবে গবেষকদের মাঝে।

User avatar
আলোকিত
সমন্বয়ক
Posts: 3424
Joined: Wed Sep 19, 2007 10:16 pm
লাইসেন্স: by-nc-nd (Creative Commons)
পছন্দ করি: কেডিই ৪, উবুন্টু, ফায়ারফক্স
Location: ঢাকা, বাংলাদেশ
Contact:

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

Post by আলোকিত » Wed Feb 24, 2010 4:40 pm

চমৎকার লেখা। ধন্যবাদ।

User avatar
অভ্রনীল
প্রযুক্তি মনষ্ক
Posts: 1507
Joined: Sun May 24, 2009 6:42 pm
লাইসেন্স: by-nc-sa(Creative Commons)
স্ট্যাটাস: উবুন্টু ১০.০৪ [ল্যুসিড লিংক্স]
Location: ঢাকা
Contact:

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

Post by অভ্রনীল » Wed Feb 24, 2010 4:50 pm

চমৎকার তথ্য জানানোর জন্য ধন্যবাদ! তবে এর ইংলিশ ভার্সন থাকলে ভালো হত, তাহলে যারা আরবী বোঝেনা তারাও জানতে পারতো। ভাবতে অবাক লাগে, ভূগোল থেকে শুরু করে আল কেমি, আলজিবর সহ এককালের জ্ঞান বিজ্ঞানের শীর্ষে থাকা মুসলমানদের আজ কি অবস্থা!
Last edited by অভ্রনীল on Wed Feb 24, 2010 5:57 pm, edited 1 time in total.

অনুপ
প্রযুক্তি মনষ্ক
Posts: 1085
Joined: Tue Jan 13, 2009 5:00 pm
লাইসেন্স: সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Location: খুলনা
Contact:

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

Post by অনুপ » Wed Feb 24, 2010 5:35 pm

প্রথম দিকের শব্দ গুলা কেউ একটু বাংলা করে দিলে পড়তে পারতাম।

User avatar
উন্মাতাল তারুণ্য
সমন্বয়ক
Posts: 2944
Joined: Sat Sep 15, 2007 3:48 pm
রক্তের গ্রুপ: O+
লাইসেন্স: by-nc-nd (Creative Commons)
স্ট্যাটাস: অনুগ্রহপূর্বক আমাকে 'techie', 'geek', 'savvy', 'nerd', 'IT expert', 'Linux expert' ইত্যাদি তৈল মর্দিত সম্বোধন করা থেকে বিরত থাকুন।
Location: ২৩°৪২′০″ উত্তর, ৯০°২২′৩০″ পূর্ব
Contact:

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

Post by উন্মাতাল তারুণ্য » Wed Feb 24, 2010 6:40 pm

বাংলা ফন্টের ব্যাপারটা একটু গবেষণা করে দেখতে হবে। যদি অন্য ভাষার ইউনিকোড ফন্ট দিয়ে সব কিছু পড়া যায় তবে বাংলা ইউনিকোডেও পড়তে পারার কথা।

বি.দ্র.: e-shamela.rar ফাইলটি ডাউনলোড করতে পারছি না। Not Found দেখাচ্ছে।

User avatar
সগির আহমাদ চৌধুরী
নিবন্ধিত সদস্য
Posts: 43
Joined: Mon Jun 29, 2009 1:45 am
রক্তের গ্রুপ: O-
পছন্দ করি: মুজিলা, উইন্ডোজ
Location: 303, কেএম ভবন (3 তলা), 11, আন্দরকিল্লা, চট্টগ্রাম-4000
Contact:

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

Post by সগির আহমাদ চৌধুরী » Wed Feb 24, 2010 11:56 pm

হ্যাঁ! ডাউনলোড করতে প্রথমে যাবেন এখানে : http://www.shamela.ws/download.php?type=0-" onclick="window.open(this.href);return false;এ গিয়ে তার ‌''من هنا‌'' এ জায়গায় ক্লিক করে ডাউনলোড করা যাবে।

উন্মাতাল তারুণ্য ভাই!
ফাইলটা কি ডাউনলোড করেছেন? ফাইলটা ডাউনলোড করে দেখুন বাংলা ব্যবহারের উপযোগী করা যায় কিনা? প্রোগ্রামটি তো সম্পূর্ণ আরবিতে তবে এর একটি ইংরেজি গাইড পাবেন এখানে : http://www.ahlalhdeeth.com/vb/attachmen ... 1197598752" onclick="window.open(this.href);return false;
Last edited by সগির আহমাদ চৌধুরী on Fri Feb 26, 2010 7:05 am, edited 2 times in total.

User avatar
সগির আহমাদ চৌধুরী
নিবন্ধিত সদস্য
Posts: 43
Joined: Mon Jun 29, 2009 1:45 am
রক্তের গ্রুপ: O-
পছন্দ করি: মুজিলা, উইন্ডোজ
Location: 303, কেএম ভবন (3 তলা), 11, আন্দরকিল্লা, চট্টগ্রাম-4000
Contact:

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

Post by সগির আহমাদ চৌধুরী » Thu Feb 25, 2010 12:02 am

অনুপ wrote:প্রথম দিকের শব্দ গুলা কেউ একটু বাংলা করে দিলে পড়তে পারতাম।
শব্দ কোনগুলো? প্রথম দিকের শব্দগুলো অর্থ الشاملة মানে তো করাই হয়েছে। পরের লিংকসহ আরবীগুলো হল ওই ওয়েবসাইটগুলোর নাম; আরবিতে।

User avatar
সগির আহমাদ চৌধুরী
নিবন্ধিত সদস্য
Posts: 43
Joined: Mon Jun 29, 2009 1:45 am
রক্তের গ্রুপ: O-
পছন্দ করি: মুজিলা, উইন্ডোজ
Location: 303, কেএম ভবন (3 তলা), 11, আন্দরকিল্লা, চট্টগ্রাম-4000
Contact:

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

Post by সগির আহমাদ চৌধুরী » Fri Feb 26, 2010 1:52 am

অভ্রনীল wrote:ভাবতে অবাক লাগে, ভূগোল থেকে শুরু করে আল কেমি, আলজিবর সহ এককালের জ্ঞান বিজ্ঞানের শীর্ষে থাকা মুসলমানদের আজ কি অবস্থা!
কেন বিজ্ঞান-প্রযুক্তি, শিল্প-সাহিত্য, সবর্ত্রই তো আজকের মুসলিমরা কোনোক্রমে পিছিয়ে নেই। ভারতের কথা দেখুন না। চলচিত্রের সেরা সব নায়করা; আমির, সালমান, শাখরুখ, সাইফ আলী, সেরা সানাই বাদক মরহুম উস্তাদ বিসমিল্লাহ খান, টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা, চিত্র শিল্পী মকবুল হুসেইন ফিদা, সাবেক ক্রিকেট তারকা আজহারুল ইসলাম, পরমাণু জনক ড. এপিজে আবদুল কালাম সবই তো মুসিলম। কুতুব মিনার, লালকেল্লা, তাজমহল সবই তো মুসলিমদের। তাজমহল বা পিরামিড আজকের বিশ্ব আর্শ্চ সবই তো মুসলিমদের গড়া বা মুসলিম দেশের। বর্তমান বিশ্বের সর্বোচ্চ দু'টি ভবন; বুর্জ দুবাই, মালেশিয়া টুইন টাওয়ার মুসলিমদের। জনসংখ্যায় মুসলিমরা আজকে 125 কোটির ওপরে।

হ্যাঁ! মুসলিমদের অবস্থা আজকে নৈতিক দেউলিত্বে পৌঁছেছে। মুসলিমরা এক সময় মরক্কো থেকে জাকার্ত পযর্ন্ত শাসন করতো। এখনো মুসলিমরা মরক্কো থেকে জাকার্তব্যাপী নয় শুধু; বিশ্বব্যাপী বাস করে। ভারতে কুতুব মিনার, তাজমহল দাঁড়িয়ে আছে, স্পেনে আল-হামরা দাঁড়িয়ে আছে। মুসলিমরা যে নীতি-আদর্শ, যে শ্লোগান নিয়ে মরক্কো থেকে জাকার্ত পর্যন্ত জয় করেছিল শাসন করেছিল শুধু সে আর্দশ ও নীতিই নেই।

ধর্মনিরপেক্ষতা, গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, বিভিন্ন জাতীয়তাবাদ মতবাদে মুসলিম উম্মা বিভক্ত হয়ে পড়ে। শাসনযন্ত্র ভাগ হয়ে যায়। মুসলিমদের ঐক্য ভেঙে যায়। মুসলিমদের ঐক্যের প্রতীক খিলাফত ভেঙে গিয়ে বিভিন্ন জাতি ও সম্প্রদায়ভিত্তিক রাষ্ট্র গড়ে ওঠে। মুসলিমদের মাঝে ঐক্যের নৈতিক ভিত্তির প্রধান শক্তি ইসলাম ভুলে মুসলিমরা আশ্রয় নেয় ধর্মনিরপেক্ষতা, গণতন্ত্র ও সমাজতন্ত্রের পতকাতলে। কেউবা নাস্তিক হয়ে যেতে বসল। অন্যদিকে ইসলামের টিকাদার মৌলবি-মোল্লারা

অথচ আমি মনে করি ধর্মনিরপক্ষতা মানে যদি ধর্মে-কর্মে স্বাধিনতা তাহলে ইসলামই সর্বশ্রষ্ট ধর্মনিরপেক্ষ আদর্শ। গণতন্ত্র মানে যদি হয় রাজতন্ত্র, স্বৈরচারীতার বিলুপ্তি এবং শাসনযন্ত্রে জনগণের অংশগ্রহণের-মতামত প্রধানের অধিকার তাহলে ইসলামই সর্বশ্রেষ্ট গণতান্ত্রিক আদর্শ। সমাজতন্ত্র মানে যদি হয় সাম্য-সমতা, সবার খাবার অধিকার তাহলে ইসলামই সর্বশ্রেষ্ট সমাজতান্ত্রিক মতাদর্শ।

ইসলামি মতাদর্শভিত্তিক রাষ্ট্রে উপরোক্ত অধিকার খোদ এসব আধুনিক মতাদর্শের থেকে ভালোভাবে সুপ্রতিষ্ঠা পায় বলে আমি বিবেচনা করি। রাসূলের এবং খুলাফায়ে রাশিদার জমানায় অমুসলিমরা যে অধিকার পেয়েছে তা কী আজকের এসব আধুনিক ধর্মনিরপেক্ষতা মতাদর্শী রাষ্ট্রে সম্ভব? আমি তো তাঁদের বলতে পারি ধর্মনিরপেক্ষ ধর্মীয় নেতা। তাই না। কিন্তু হায় কপাল? আজকের মৌলবিরা না এদর-ওদের। হালুয়া-রুটি নিয়ে ব্যস্ত। সাধু-সন্ন্যাসীর ভেষে মাজার-দর্গা নিয়ে একধরনের ব্যবসায় ব্যস্ত।

User avatar
অভ্রনীল
প্রযুক্তি মনষ্ক
Posts: 1507
Joined: Sun May 24, 2009 6:42 pm
লাইসেন্স: by-nc-sa(Creative Commons)
স্ট্যাটাস: উবুন্টু ১০.০৪ [ল্যুসিড লিংক্স]
Location: ঢাকা
Contact:

المكتبة الشاملة (আল-মাকতাবা আশ-শামিলা)

Post by অভ্রনীল » Fri Feb 26, 2010 5:41 am

আপনার কথাগুলো ভালো লাগলো (যদিও কিছুটা দ্বিমত আছে)। তবে ব্যাপার হচ্ছে যে আমি আমার আফসোসটাকে আসলেই "জ্ঞানবিজ্ঞান"এর মধ্যে রাখতে চেয়েছিলাম!
সগির আহমাদ চৌধুরী wrote:গণতন্ত্র মানে যদি হয় রাজতন্ত্র, স্বৈরচারীতার বিলুপ্তি এবং শাসনযন্ত্রে জনগণের অংশগ্রহণের-মতামত প্রধানের অধিকার তাহলে ইসলামই সর্বশ্রেষ্ট গণতান্ত্রিক আদর্শ
ইসলামতো রাজতন্ত্রে বিশ্বাসী না। যদি ইসলামে রাজতন্ত্রের কোন অবকাশ থাকতো তাহলে রাসুল (স) এর মৃত্যুর পর পারিবারিকভাবে তাঁর কন্যা (হযরত ফাতিমা (র)) বা জামাতা (হযরত আলী (র)) বা দৌহিত্র দ্বয়ের (হাসান-হুসাইন) যে কেউ একজন মুসলিম বিশ্বের নেতৃত্বে থাকার কথা ছিল, হযরত আবু বকর (র) প্রথম খালিফা হতেন না। শাসনতন্ত্রে জনগনের অংশগ্রহন এবং মতামত প্রদান খুব বড় একটা ভূমিকা পালন করে ইসলামী শাসন ব্যবস্থায়। মিডলইস্টকে দেখে অনেকেই মনে করে যে ইসলামে বুঝি রাজতন্ত্র বৈধ, আসলে কিন্তু তা নয়!

যাই হোক অফটপিক পোস্ট হয়ে যাচ্ছে, সেজন্য অনেক দুঃখিত।
Last edited by অভ্রনীল on Fri Feb 26, 2010 7:24 am, edited 2 times in total.

Post Reply

Return to “সফটওয়্যার রিভিউ”